ব্যবহারিক বাংলা ব্যাকরণ

বাংলা কবিতা-১ সাজেসন্স

অনার্স প্রথম বর্ষ পরীক্ষা – ২০২০ ( অনুষ্ঠিত হবে ২০২১) বাংলা সাজেসন্স বিষয়- বাংলা কবিতা-১ বিষয় কোড- ২১১০০৫ রচনামূলক প্রশ্ন- ১. নক্সী কাঁথার মাঠ কাব্যের আধুনিকতা বিচার কর। ২. নক্সী কাঁথার মাঠ কাব্যের সাজু চরিত্র সম্পর্কে লেখ। ৩. নক্সী কাঁথার মাঠ কাব্যে কবিত্ব শক্তি ও জীবন দৃষ্টি সম্পর্কে লেখ। ৪. নক্সী কাঁথার মাঠ কাব্যে লোক …

বাংলা কবিতা-১ সাজেসন্স Read More »

বাংলাদেশ ও বাঙালির ইতিহাস ও সংস্কৃতি সাজেসন্স

অনার্স প্রথম বর্ষ পরীক্ষা – ২০২০ ( অনুষ্ঠিত হবে ২০২১) বাংলা সাজেসন্স বিষয়- বাংলাদেশ ও বাঙালির ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিষয় কোড- ২১১০০১ রচনামূলক প্রশ্ন- ১. প্রাচীন বাংলার বিভিন্ন জনপদ এর সীমারেখা ও পরিস্থিতি সম্পর্কে আলোচনা কর। ২.বাংলা নামের উৎপত্তি ও বিবর্তন সম্পর্কে লেখ । ৩.‘বাঙালি একটি শঙ্কর জাতি’ – আলোচনা কর। ৪. প্রাচীন বাংলার রাজনৈতিক …

বাংলাদেশ ও বাঙালির ইতিহাস ও সংস্কৃতি সাজেসন্স Read More »

বাংলা উপন্যাস -১ সাজেসন্স

অনার্স প্রথম বর্ষ পরীক্ষা – ২০২০ ( অনুষ্ঠিত হবে ২০২১) বাংলা সাজেসন্স বিষয়- বাংলা উপন্যাস -১ বিষয় কোড- ২১১০০৭ রচনামূলক প্রশ্ন- ১. রোমান্সধর্মী উপন্যাস হিসেবে ‘কপালকুণ্ডলা’ উপন্যাসের সার্থকতা বিচার কর। ২. ‘কপালকুণ্ডলা’ চরিত্র বিশ্লেষণ কর। ৩. প্রকৃতি ও মানব জীবনের এক জটিল চরিত্র রূপায়িত হয়েছে ‘কপালকুণ্ডলা’ উপন্যাসে- ব্যাখ্যা কর। ৪. ‘কপালকুণ্ডলা’ উপন্যাসের আঙ্গিক বৈশিষ্ট্য অনন্য- …

বাংলা উপন্যাস -১ সাজেসন্স Read More »

বাক্য বিশ্লেষণ কাকে বলে? বাক্য বিশ্লেষণের পদ্ধতি উদাহরণসহ উপস্থাপন কর

বাক্য বিশ্লেষণ কাকে বলে?  বাক্য বিশ্লেষণের পদ্ধতি  উদাহরণসহ উপস্থাপন কর মানুষ তার মনের ভাব প্রকাশের জন্য অর্থবোধক শব্দ দ্বারা বাক্য গঠনের মাধ্যমে আত্মপ্রকাশের সুযোগ লাভ করে। বাক্য শব্দের উৎপত্তিগত অর্থ হলো ‘কথিত বিষয়’। ভাষার মূল উপাদান হলো বাক্য এবং বাক্যের মূল উপাদান হচ্ছে শব্দ। সার্থক পদসমষ্টি যখন অর্থের দ্যোতনা সৃষ্টি করে তখন তাকে বাক্য বলা …

বাক্য বিশ্লেষণ কাকে বলে? বাক্য বিশ্লেষণের পদ্ধতি উদাহরণসহ উপস্থাপন কর Read More »

আন্তর্জাতিক ধ্বনিমূলক বর্ণমালা বলতে কি বুঝ ( I P A)? বাংলা বর্ণমালাকে আন্তর্জাতিক ধ্বনিমূলক বর্ণমালায় রূপান্তরিত কর

আন্তর্জাতিক ধ্বনিমূলক বর্ণমালা বলতে কি বুঝ ( I P A)? বাংলা বর্ণমালাকে আন্তর্জাতিক ধ্বনিমূলক বর্ণমালায় রূপান্তরিত কর প্রত্যেক ভাষার মূল হচ্ছে ‘ধ্বনি। পৃথিবীর সব ভাষাই মূলত কিছু অর্থবােধক ধ্বনির সমন্বয়ে গড়ে উঠেছে। ধ্বনিগুলাে প্রকাশ করার জন্য প্রত্যেক ভাষায় নির্দিষ্ট কিছু বর্ণ ব্যবহার করা হয়। তবে এক ভাষাভাষী মানুষের সাথে অন্য ভাষাভাষী মানুষের যােগাযােগ বা পরিচয় …

আন্তর্জাতিক ধ্বনিমূলক বর্ণমালা বলতে কি বুঝ ( I P A)? বাংলা বর্ণমালাকে আন্তর্জাতিক ধ্বনিমূলক বর্ণমালায় রূপান্তরিত কর Read More »

বিরাম চিহ্ন ব্যবহারে ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের ভূমিকা আলোচনা কর

বিরাম চিহ্ন ব্যবহারে ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের ভূমিকা আলোচনা কর বিরাম চিহ্নের ইংরেজি প্রতিশব্দ Punctuation। গ্রিক Punctus থেকে ইংরেজি Punctuation শব্দটি এসেছে। Punctus অর্থ বিন্দু বা point । প্রথম দিকে এ বিন্দু হিব্রু ভাষায় ব্যঞ্জনধ্বনির সঙ্গে স্বরধ্বনির সংকেত হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে। পঞ্চদশ শতকে এসে এটি Period of full stop হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে। অন্যান্য বিরামচিহ্নগুলাে বর্তমানে যে অর্থে, …

বিরাম চিহ্ন ব্যবহারে ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের ভূমিকা আলোচনা কর Read More »

প্রাচীন ভারতীয় আর্য ভাষার ভাষাতাত্ত্বিক বৈশিষ্ট্য আলোচনা করো

প্রাচীন ভারতীয় আর্য ভাষার ভাষাতাত্ত্বিক বৈশিষ্ট্য আলোচনা করো প্রাচীন ভারতীয় আর্য ভাষা বলতে সেই পুরানাে ভাষাকে বােঝায়, যার সাধুরূপ দুটি- বৈদিক ও সংস্কৃত। বৈদিক ও সংস্কৃত-এর কোনটিই ঠিক কথ্য অর্থাৎ মুখের ভাষা ছিল না; শুধুই ছিল সাহিত্যের ভাষা। প্রাচীন ভারতীয় আর্য ভাষা বললে কেবল বৈদিক ও সংস্কৃত ভাষা নয়; বরং এর পিছনে যে কথ্য ভাষা …

প্রাচীন ভারতীয় আর্য ভাষার ভাষাতাত্ত্বিক বৈশিষ্ট্য আলোচনা করো Read More »

সন্ধি কাকে বলে? সন্ধি কত প্রকার ও কী কী ? উদাহরণসহ আলোচনা কর

সন্ধি কাকে বলে?  সন্ধি কত প্রকার ও কী কী ? উদাহরণসহ আলোচনা কর বাংলা ভাষায় ব্যবহার উপযোগী অসংখ্য শব্দ রয়েছে। শব্দগুলাের গঠন বৈশিষ্ট্য বিচারে প্রথমত দু’ভাগে ভাগ করা যায়। যথা: মৌলিক শব্দ ও সাধিত শব্দ। মৌলিক শব্দগুলাের কোন প্রকার বিশ্লেষণ করা চলে না। অর্থাৎ এগুলােতে কোন প্রকার প্রত্যয়, উপসর্গ, বিভক্তি যুক্ত হয় নি। তাছাড়া এগুলাে …

সন্ধি কাকে বলে? সন্ধি কত প্রকার ও কী কী ? উদাহরণসহ আলোচনা কর Read More »

বাংলা ভাষার উৎপত্তি সম্পর্কে পণ্ডিতদের অভিমত বিচার করে তোমার মতামত উপস্থাপন কর

বাংলা ভাষার উৎপত্তি সম্পর্কে পণ্ডিতদের অভিমত বিচার করে  তোমার মতামত উপস্থাপন কর পণ্ডিতগণ বাংলা ভাষার উৎপত্তি সম্পর্কে একমত নন। পণ্ডিতগণের ভিন্ন মত প্রধানত দুটি  বিষয়ের ওপর। একটি হচ্ছে- কোন্ ভাষা হতে বাংলা ভাষা এসেছে, বাংলা ভাষা উৎপত্তির সময়। আর এ বিষয়ে যাদের মতামত সর্বজন স্বীকৃত তাদের অন্যতম স্যার জর্জ গ্রিয়ারসন, ড. সুনীতিকুমার চট্টোপাধ্যায়, ড. সুকুমার …

বাংলা ভাষার উৎপত্তি সম্পর্কে পণ্ডিতদের অভিমত বিচার করে তোমার মতামত উপস্থাপন কর Read More »

ইন্দো-ইউরোপীয় ভাষাগোষ্ঠীতে বাংলার অবস্থান নির্ণয় কর

 ইন্দো-ইউরোপীয় ভাষাগোষ্ঠীতে  বাংলার অবস্থান নির্ণয় কর পৃথিবীর বিভিন্ন ভাষার ইতিহাস আলােচনা করে পণ্ডিতেরা ভাষাকে কয়েকটি গােষ্ঠীতে ভাগ করেছেন। বিভিন্ন ভাষার ক্রমপরিণতির বিভিন্ন স্তরের মধ্যে শব্দ ও ব্যাকরণে মিল থাকলে অথবা দুটি ভাষার আদি রূপের মিল পাওয়া গেলে তাদের এক ভাষাগােষ্ঠীর অন্তর্গত বলে মনে করা হয়। ইন্দো-ইউরােপীয় মূল ভাষাগােষ্ঠী এমনি একটি ভাষাগােষ্ঠী হিসেবে বিবেচিত।  ড. মুহম্মদ …

ইন্দো-ইউরোপীয় ভাষাগোষ্ঠীতে বাংলার অবস্থান নির্ণয় কর Read More »

Scroll to Top