প্রতিবেদনের বৈশিষ্ট্য গুলি লেখ

Spread the love

প্রতিবেদনের বৈশিষ্ট্য গুলি লেখ

কোন বিষয় বা ঘটনা সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য অনুসন্ধান এরপর সে বিষয় বা ঘটনা সম্পর্কে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট যে বিবরণ পেশ করা হয় তার নাম প্রতিবেদন। প্রতিবেদন কথাটির ইংরেজি প্রতিশব্দ ‘Report’। ‘Report’ শব্দের আভিধানিক অর্থ বিবৃতি, বিবরণ বা সমাচার তবে বাংলা ভাষার ক্ষেত্রে ‘Report’ এর প্রতিশব্দ ‘প্রতিবেদন’ সবচেয়ে বেশি প্রচলিত এবং ব্যবহৃত হচ্ছে। প্রতিবেদন যিনি তৈরি করেন তাকে বলা হয় প্রতিবেদক। প্রতিবেদক এর কাজ কোন বিষয়ে যথাযথ তথ্য, উপাত্ত,পরিসংখ্যান, সিদ্ধান্ত ও ফলাফল সম্পর্কে অনুসন্ধানী বিবরণ উপস্থাপন করা। ব্যক্তিগত, পারিবারিক ,সামাজিক ও জাতীয় প্রয়োজনে অনেক প্রতিবেদন বিশেষ ভূমিকা পালন করে।একটি প্রতিবেদন যদি বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যনির্ভর হয় তবে বর্তমান প্রেক্ষাপটে প্রতিবেদনটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে। প্রতিবেদনটি হতে হবে অবশ্যই নিরপেক্ষ।কোন ঘটনা বা বিষয়ের যথাযথ পর্যালোচনা এবং সত্যতা প্রতিবেদনে প্রকাশ পাবে।

প্রতিবেদনের বৈশিষ্ট্য:

১.  প্রতিবেদনটি নিয়ম অনুযায়ী ও নির্দিষ্ট কাঠামোর মধ্যে রচিত হতে হবে।
২. জটিল বিষয়ে অতি সাধারণ ও সহজ সরল ব্যাখ্যা প্রদান করতে হবে।
৩. প্রতিবেদনটি বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্য নির্ভর হতে হবে।
৪. প্রতিবেদক কোন প্রকার আবেগ বা ভাব প্রকাশ করতে পারবে না। আবেগ সংযত করে প্রয়োজনীয় বক্তব্য প্রতিবেদন উপস্থাপন করতে হবে।
৫. প্রতিবেদনের ধারাবাহিকতা কোনভাবেই যেন ক্ষুন্ন না হয় সে দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।
৬. প্রতিবেদনে পূর্ববর্তী অংশের সঙ্গে পরবর্তী অংশের সামঞ্জস্য থাকতে হবে।
৭. প্রতিবেদনের বিষয়বস্তুকে অনুচ্ছেদ অনুসারে ভাগ করতে হবে। প্রতিটি অনুচ্ছেদে ভিন্ন ভিন্ন ঘটনার বিবরণ থাকবে এবং অনুচ্ছেদ শুরু হবে প্রাসঙ্গিক বাক্য দিয়ে।

একটি প্রতিবেদন হবে সার্বজনীন তথা যেকোনো পাঠক তার দৃষ্টিভঙ্গির আলোকে মন্তব্য করতে পারবে। প্রতিবেদন হল একটি সুসংগঠিত তথ্যগত বিবৃতি তাই প্রতিবেদন রচনার ক্ষেত্রে যথেষ্ট সর্তকতা ও পর্যালোচনা করতে হবে।

2 thoughts on “প্রতিবেদনের বৈশিষ্ট্য গুলি লেখ”

  1. Pingback: প্রতিবেদন রচনার নিয়ম বা পদ্ধতি ও শ্রেণি বিভাজন | Cholo Shekhe

  2. Pingback: বাংলা ভাষার ইতিহাস ও ব্যবহারিক বাংলা সাজেসন্স | Cholo Shekhe

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top